Taqdeer movie bangla review

বাংলায় এখন প্রতি বছর অসংখ্য ওয়েব সিরিজ রিলিজ হয় । যার বেশিরভাগটাই রিলিজ করে থাকে OTT প্লাটফর্ম Hoichoi । 

কিন্তু দর্শকদের অনেকেই অভিযোগ করেন যে বাংলার ওয়েব সিরিজগুলো মান সেভাবে এখনো উন্নত হয়নি । গল্প বলতে সেই ক্রাইম অথবা যৌন সুড়সুড়ি বিষয়ক সাবজেক্ট । ফ্যামিলির সবাই মিলে একসাথে দেখা কিংবা World Class কন্টেন্ট প্রায় নেই বললেই চলে ।

 

এবারে কিন্তু সেই অভিযোগ হয়তো মুছতে চলেছে । আর এর কারণ বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা Chanchal Chowdhury অভিনীত সিরিজ Taqdeer ।

গল্পের শুরু হয় একজন রেপ ভিকটিম নিজের ব্যাপারে বলছে সেখানে কোন ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক রাখা হয়নি।

Bangla Web Series এই ট্রেন্ডটা কিন্তু নেই।

 

বাংলা ওয়েব সিরিজ মানেই প্রতিটা সিনে একটা হালকা Background Music চলতেই থাকে । 

এক কথায় বলতে গেলে এই প্রথমবার কোন বাংলা ওয়েব সিরিজ International standard কে টাচ করতে পেরেছে । 

 

অভিনয়ের দিক থেকে Chanchal Chowdhury বরাবরের মতোই অসাধারণ অভিনয় করেছেন । প্রতিটা দৃশ্যে তার অসাধারণ এক্সপ্রেশন সিরিজকে নিয়ে এক অন্য উচ্চতায় । প্রতিটা সিন খুব সুন্দর ভাবে ডেভলপ করা হয়েছে । ডায়লগ গুলোও যথেস্ট ভালো ।

Taqdeer এর পাশাপাশি Montu চরিত্রটি এই সিরিজের আরেকটি প্লাস পয়েন্ট । Sohail Rana এই মন্টু চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন ।

সাংবাদিক Afsana র চরিত্রটা খুব বেশি না হলেও স্বল্প সময়ের এই চরিত্রেও Sanjida Preeti নিজের একটা আলাদা ছাপ রেখে গেছেন ।

 

Bangladesh এর অনেক মানুষ দুঃখ করেন যে, ভারতীয় সিনেমার মতো বাংলাদেশের সিনেমা এত ভালো হয়না । কিন্তু একটা কথা কিন্তু মেনে নিতেই হচ্ছে বাংলাদেশ নাটক ইন্ডাস্ট্রির দিক থেকে অনেক এগিয়ে ।

নাটক আছে বলেই Chanchal ChowdhuryNisho, Apurba বা মোশাররফ করিম এর মতো ভার্সেটাইল অভিনেতাদের দেখার সুযোগ পেয়েছেন দর্শকেরা ।

 

সবশেষে, আপনি যদি থ্রিলার বা ক্রাইম পছন্দ করেন কিংবা ভালো অভিনয় দেখতে চান তাহলে এই সিরিজটি আপনার জন্য । এর আগেও চঞ্চল চৌধুরী আয়নাবাজি র মতো ছবি করে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি কত বড় অভিনেতা । 

Syed Ahamed Shawki র দুর্দান্ত Screenplay আর বিশ্বমানের একটি বাংলা ওয়েব সিরিজ দেখতে চাইলে একবার অবশ্যই দেখে ফেলুন এই সিরিজটি ।

শীতের এই মরশুমে Hoichoi আপনাকে নিরাশ করবে না । 

 

 

তাকদীর মানে ভাগ্য ,ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে ফেঁসে গেছেন তাকদীর,
একজন ফ্রিজার ভ্যানচালকের গল্প মৃত ব্যক্তিদের লাশ এক গন্তব্য থেকে আরেক গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়াই যার কাজ।

নতুন আলোর পত্রিকার বিখ্যাত সাংবাদিক আফসানা ধর্ষিতা এক মেয়ের রিপোর্ট কাভার করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর ঘটনার শিকার হয় এবং তার মৃত্যু ঘটে।

এখন প্রশ্ন হলো কারা খুন করলো তাকে? এবং কেনই বা তাকে খুন করা হলো।
এবার গল্পের আকর্ষিক মোর তাকদীর তার ফিজার ভ্যানে সাংবাদিক আফসানার লাশ দেখতে পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে।

আর এদিকে সাংবাদিককে খুঁজতে তাকদীরের পিছনে পড়েছে গোয়েন্দা পুলিশের দল।

এখন লাশ নিয়ে কোথায় যাবে সে? এই দোটানার মাঝেই চলতে থাকে সিরিজের মূল গল্প।

যা ধীরে ধীরেপলিটিক্যাল ইস্যু মধ্যে জড়িয়ে পড়ে এই সিরিজের সবচাইতে আকর্ষণীয় দিক হচ্ছে এর পারফর্মেন্স।

লিট কাস্ট এ যেসব তুখর অভিনেতারা রয়েছেন তাতে বোঝাই যাচ্ছে পারফরম্যান্স কোন লেভেলে থাকার কথা।

তবে আলাদা করে বলতে হয় ছানজিদা পার্থ বড়ুয়া এবং চঞ্চল চৌধুরী এর কথা যাদের পারফরম্যান্স আপনাদের স্ক্রিন থেকে চোখ ফেরাতে দেবে না।

 

 

এবং বাকিরাও যে যার জায়গায় ঠিকঠাক ছিল, এই সিরিজের আর একটি প্রশংসনীয় দিক হলো এর স্ক্রিনপ্লে এবং এর স্টোরি যা আপনার গল্পের সঙ্গে ইংগেস করে রাখবে।

৮ এপিসোডের প্রায় ৩ ঘণ্টা ১০ মিনিট এর এই সিরিজটির প্রতিটি পর্ব এমন জায়গায় শেষ হয় যা আপনার পরবর্তী পর্ব দেখার আগ্রহ আরও বাড়িয়ে দেয়।

সিনেমাটোগ্রাফি ডিরেকশন এবং কালার টোন এর ব্যবহার যথার্থই তবে এই সিরিজে বাংলার অন্যান্য সিরিজের মত নেই কোনো বিজিএমইএর বাহার। যা আছে পুরোটাই বাস্তবতা।

তাই কিছুক্ষণের জন্য মনে হতে পারে সবকিছুই আপনার সামনে ঘটছে যা পূর্বে ঢাকা মেট্রো সিরিজে দেখা গিয়েছিল।

সব মিলিয়ে ক্রাইম থ্রিলার এই সিরিজটি আপনাকে ফুল ইনটেনডেন্ট করার জন্য যথেষ্ট তবে গল্পে যে পলিটিক্যাল দিক গুলো দেখানো হলো তা আরেকটু স্ট্রং হতে পারত।

পরিশেষে এটুকুই বলতে পারি ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে মানুষের কি পরিনিতি হয় তারই একটি প্রতিচ্ছবি তাকদীর নামক এই সিরিজটি।

1 thought on “Taqdeer movie bangla review”

  1. Pingback: What is ADSENSE HOW to earn money from google adsense?

Leave a Reply

Your email address will not be published.